এপ্রিলে বিধানসভা ভোটের আগে কেরালার পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাম-জোটের ভালো ফল

বিভাগ-বহির্ভূত

Last Updated on 9 months by admin

নিজস্ব সংবাদদাতা, ১৭ই ডিসেম্বর, দুপুর ১টা

কেরালার গ্রাম পঞ্চায়েত নির্বাচনে ৯৪১টি আসনের মধ্যে ৫১৪টায় জয়ী হয়েছে সিপিএম নেতৃত্বাধীন বাম-গণতান্ত্রিক জোট (এলডিএফ)। ব্লকস্তরে ১৫২টি সীটের মধ্যে তারা পেয়েছে ১০৮টি, জেলা পরিষদ স্তরে ১৮টি সীটের মধ্যে পেয়েছে ১০টি, ৮৬টি পৌরসভা এর মধ্যে পেয়েছে ৩৫টি এবং ৭টি কর্পোরেশনের মধ্যে পেয়েছে ৩টি। ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে ২০টির মধ্যে মাত্র ১টি সীট পাওয়া, সাম্প্রতিক সোনার খনি বিষয়ক দুর্নীতির অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রীর অফিসের পর্যন্ত নাম জড়িয়ে যাওয়া এইসমস্ত এর প্রেক্ষিতে চারমাস পরের বিধানসভা নির্বাচনের লড়াইয়ের জন্য এই নির্বাচনের ফল পিনারাই বিজয়নদের বেশ খানিকটা এগিয়ে দেবে, তা নিশ্চিত।

 

কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউডিএফ দ্বিতীয় স্থানে আছে ৩৭৫টি গ্রাম পঞ্চায়েত, ৪৪টি ব্লক, ৪টি জেলা পরিষদ, ৪৫টি পৌরসভা, ১টি কর্পোরেশন জিতে। কোচি ও থ্রিসুর এর কর্পোরেশনের কেউ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। বিজেপি দু’এক জায়গায় আগের থেকে একটু ভালো ফল করলেও এবং কেরালার রাজনৈতিক চর্চার মধ্যে নিজেদের একটা মাত্রায়  প্রতিষ্ঠিত করতে পারলেও ভোটের বিচারে এখনো বহু পিছিয়ে। মোট ২৩টি গ্রাম পঞ্চায়েত ও ২টি পৌরসভা জিতেছে, ব্লক, জেলা-পরিষদ বা কর্পোরেশন স্তরে কোনো সীট পায়নি। সবরিমালা মন্দিরের মেয়েদের প্রবেশাধিকার বিতর্কের ভিত্তিতে হিন্দু ভোট বিজেপির দিকে মেরুকরণ হবার সম্ভবনা, কিংবা সাম্প্রতিককালে সোনা-পাচার সংক্রান্ত বিষয়ে সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগের ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলি যতটা সক্রিয় এসবের প্রভাব বিজেপির ভোটব্যাঙ্ক মজবুত করবে এরকম সম্ভবনার কথা নানা মহলে আলোচনায় থাকলেও নির্বাচনে বিজেপির ফল ভালো হয়নি। রাজ্য বিজেপির দুই লবির মধ্যে কোন্দলের ফলে এক অংশের নির্বাচনে নিষ্ক্রিয় থাকাও এপ্রসঙ্গে উলেখযোগ্য।

 

কেরালার বন্যাকে কেন্দ্র করে সরকারের সক্রিয়তা, কোভিডের নিয়ন্ত্রণে শক্তিশালী পদক্ষেপ ও রেশনের ব্যবস্থাপনা ও এইসমস্ত ওয়েলফেয়ার সংক্রান্ত কাজে স্থানীয় নির্বাচিত বডি ও স্থানীয় পার্টিকে সক্রিয় করতে পারা এসবই গ্রামাঞ্চলের সাধারণ মানুষের মধ্যে এলডিএফ এর সপক্ষে কাজ করেছে বলে অনেকে মনে করছেন। কংগ্রেসের দিশাহীন অবস্থা, সংগঠনের অভ্যন্তরের গোলযোগ ইত্যাদি দুর্বল করেছে কংগ্রেসকে, যা বেশ কিছু জায়গায় যেমন বিজেপিকে জমি দিয়েছে, তেমনি এলডিএফ এর পালেও হাওয়া দিয়েছে। কয়েকমাস আগে উচ্চবর্ণ সিরিয়ান খ্রিস্টান অংশের নেতা কেরালা কংগ্রেস(এম) এর জোসে কে মানি ইউডিএফ ভেঙ্গে এলডিএফ এ যোগদান কিছু অঞ্চলে এগিয়ে দিয়েছে এলডিএফ কে।

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
No Thoughts on এপ্রিলে বিধানসভা ভোটের আগে কেরালার পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাম-জোটের ভালো ফল

Leave A Comment