দিল্লীর ফিরোজ শাহ কোটলা স্টেডিয়ামে বসছে অরুণ জেটলির মূর্তি, প্রতিবাদ জানিয়ে স্টেডিয়াম থেকে নিজের নাম সরিয়ে নিতে বললেন প্রাক্তন স্পিনার বিষেন সিংহ বেদি, অভিযোগ স্বজনপোষণেরও

বিশেষ খবর রাজনীতি

Last Updated on 9 months by admin

নিজস্ব সংবাদদাতা, ২৮শে ডিসেম্বর, ২০২০: আজ দিল্লীর ফিরোজ শাহ কোটলা স্টেডিয়ামে বসতে চলেছে প্রয়াত বিজেপি নেতা অরুন জেটলির মূর্তি। ৮০০ কেজির এই স্ট্যাচুর খরচ পড়ছে ১৫ লাখ টাকা। অমিত শাহ আসার কথা উদ্বোধন করতে এমনটাই খবর দিল্লি অ্যান্ড ডিস্ট্রিক্ট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রাক্তন সভাপতি তথা প্রয়াত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ জেটলির মূর্তি বসানোর সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ প্রাক্তন কিংবদন্তি স্পিনার বিষেণ সিং বেদি। ১৯৯৯ সাল থেকে ২০১৩ পর্যন্ত জেটলি ডিডিসিএ-র প্রধান হিসেবে কাজ করা জেটলির মৃত্যুর পর ২০১৭ সালে কোটলা স্টেডিয়ামের নামকরণ করা হয় তাঁর নামে, সেই সময় বেদি সেরকম কোন প্রতিবাদ না জানালেও এবারের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে চিঠি লিখে নিজের সদস্যপদ ত্যাগ করার কথা জানিয়ে দিয়েছেন, এমনকি কোটলা স্টেডিয়ামে তাঁর নামাঙ্কিত স্ট্যান্ড থেকেও তাঁর নাম অবিলম্বে সরিয়ে নিতে বলেছেন কিংবদন্তি এই ক্রিকেটার। উল্লেখযোগ্য, ১৪ বছর অরুণ জেটলি ডিডিসিএ এর সভাপতি থাকার পরে এখন ওই সভাপতি পদে বসেছেন অরুণ জেটলির ছেলে রোহন জেটলি। একদিকে অমিত শাহের ছেলে জয় শাহ আর একদিকে অরুণ জেটলির ছেলে রোহন জেটলি থাকায় ক্রিকেটে স্বজনপোষণ নিয়ে অভিযোগ উঠেছে অনেক মহল থেকেই।

বেদির মতে জেটলি দিল্লি ক্রিকেট সংস্থাকে দুর্নীতিবাজদের আখড়া বানিয়েছিলেন। শুধু তাই নয়, স্বজনপোষণের অভিযোগও তুলেছেন। চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘ধৈয্যশীল ও সহনশীল ব্যক্তি হিসেবে নিজেকে নিয়ে গর্ববোধ করি। তবে আশঙ্কা হচ্ছে, আমার ধৈর্য্য ক্রমে কমে আসছে। ডিডিসিএ আমার ধৈর্য্যের পরীক্ষা নিচ্ছে এবং বাধ্য করেছে এমন কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে’। তিনি আরও লেখেন, ‘আমার নামাঙ্কিত স্ট্যান্ড থেকে আমার নাম অবিলম্বে সরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে আমি ডিডিসিএর সদস্যপদ ত্যাগ করার কথা ঘোষণা করছি।’বেদি জানিয়েছেন – তাঁর হাতে যখন ক্ষমতা ছিল, তখন অনেক দুর্নীতি করেছেন। তাঁর বিরুদ্ধে লড়াই করেছি আমি। যখন তাঁর নামে স্টেডিয়ামের নাম রাখা হয়, তখন আপত্তি করিনি। কারণ সেটা সম্মান দেওয়ার অংশ। কিন্তু একজন রাজনীতিবিদের মূর্তি ময়দানে বসানোর অর্থ, ময়দানের সম্মানহানি করা।

বেদির এই সিদ্ধান্তকে অনেকেই স্বাগত জানিয়েছেন এবং বিভিন্ন মহলে এই নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছে যে, খেলার মাঠে কোন স্বচ্ছ ভাবমূর্তিপূর্ণ প্রাক্তন তারকা খেলোয়াড়ের মূর্তি যতটা অনুপ্রেরনা দেয়, সেই স্থানে কোন রাজনীতিবিদের মূর্তি বসানো কতটা যথাযথ, সে তিনি যতটাই ভালো বা খারাপ রাজনীতিবিদ হোন না কেন। যখন গোটা দেশের অর্থনীতির এই বেহাল দশা, দিন দিন বেকারত্ব বাড়ছে, বহু মানুষ না খেতে পেয়ে মারা যাচ্ছে, শিক্ষা, স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটছে, সেই অবস্থায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের কাজের কাজ না করে এই নিজেদের দলের নেতাদের মূর্তি বসানোর বাড়াবাড়ি নিয়ে বিভিন্ন মহলে ওঠা প্রশ্ন ওঠা  অপ্রাসঙ্গিক নয়।

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
No Thoughts on দিল্লীর ফিরোজ শাহ কোটলা স্টেডিয়ামে বসছে অরুণ জেটলির মূর্তি, প্রতিবাদ জানিয়ে স্টেডিয়াম থেকে নিজের নাম সরিয়ে নিতে বললেন প্রাক্তন স্পিনার বিষেন সিংহ বেদি, অভিযোগ স্বজনপোষণেরও

Leave A Comment