লোকাল ট্রেন চালু করার দাবিতে বেলদায় বিক্ষোভ

আজকের খবর

Last Updated on 9 months by admin

নিজস্ব সংবাদদাতা: করোনার জন্য লক-ডাউন। লক-ডাউনের কারণে থমকে গিয়েছিল জনজীবন। এখন আস্তে আস্তে প্রতিনিয়ত পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হচ্ছে। পেটের টানে বা প্রয়োজনে মানুষকে বেরোতেই হচ্ছে। তবে এখনও ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়নি বহু জায়গায়। শহরাঞ্চলে লোকাল ট্রেন চালু হয়েছে মাস দুয়েক হল। দূরপাল্লার ট্রেনও চালু হয়েছে। তবে এখনও বহু জায়গায় লোকাল ট্রেন পরিষেবা থমকেই রয়েছে। যার জেরে প্রতিদিন সমস্যার সম্মুখিন হতে হচ্ছে নিত্যযাত্রীদের। করোনার আগে প্রতিদিন এক বিপুল সংখ্যক মানুষ লোকাল ট্রেনেই যাতায়াত করতেন। আনলক পর্ব শুরু হলেও এইসব প্রত্যন্ত অঞ্চলে লোকাল ট্রেন পরিষেবা একেবারেই বন্ধ এখন। তবে প্রতিদিনই কাজে যেতে হচ্ছে সাধারণ মানুষদের, আর তাতেই সমস্যায় পড়তে হচ্ছে সকলকে। এছাড়াও ট্রেন না চলায় সমস্যায় পড়েছেন হকার থেকে শুরু করে স্টেশনের ব্যবসাদাররাও। আমরা আগেও খবর পেয়েছি বহু হকার লক-ডাউন পর্বে আত্মহত্যা করেছেন শুধুমাত্র রুটি-রুজির অভাবে।

ট্রেন না চলায় সাধারণ মানুষকে বাসে করে যেতে হচ্ছে কর্মস্থলে। বাসের ভাড়া বেশি হওয়ায় অনেক মানুষকেই সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এছাড়াও সমস্যায় পড়েছেন ট্রেনের হকার থেকে শুরু করে স্টেশনের ব্যবসাদাররা। ট্রেন বন্ধ থাকায় কর্মহীন হয়ে পড়েছেন তারা। আর সেই কারণেই আর্থিক কষ্টের মধ্যে দিন কাটছে তাদের। লোকাল ট্রেন যখন বন্ধ ছিল তখন বহু জায়গায় মানুষ বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন ট্রেন পরিষেবা চালুর দাবিতে। এখনো যেসব অঞ্চলে লোকাল ট্রেন চালু হয়নি সেসব জায়গার মানুষ প্রতিবাদে সামিল হচ্ছেন লোকাল ট্রেন চালানোর দাবি নিয়ে।

লোকাল ট্রেন চালানোর দাবিতে এ বার বিক্ষোভ হল বেলদা স্টেশনে। স্টেশন ম্যানেজারকে ঘেরাও করলেন বেলদার স্থানীয় যাত্রী ও হকাররা। বৃহস্পতিবার বেলদা-হাওড়া লোকাল ট্রেন বেলদা স্টেশন থেকে ছাড়ার দাবি তোলা হয়েছে। অবিলম্বে ট্রেনটি চালু করার দাবিতে কেশিয়াড়ি মোড় থেকে মিছিল করে বেলদা স্টেশনে আসে যাত্রী সুরক্ষা ও নাগরিক কল্যাণ সমিতি। সেখানে ঘেরাও করা হয় বেলদা স্টেশন ম্যানেজারকে। বিক্ষোভে অংশ নেওয়া যাত্রীদের বক্তব্য, করোনা ও লক-ডাউনের জেরে বন্ধ করে দেওয়া ট্রেন ফের চালু করতে হবে, যা নিয়ে টালবাহানা করছে রেল কর্তৃপক্ষ। দক্ষিণ পূর্ব রেলওয়ের অন্য অনেক শাখায় লোকাল চালু হলেও খড়্গপুর ডিভিশনের বেলদা শাখায় লোকাল চালু এখনও চালু করে নি রেল কর্তৃপক্ষ। ট্রেন চালু করার দাবি নিয়ে এখানকার যাত্রী, হকার ও ব্যবসাদাররা বারবার রেল কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছেন। কমিটি জানিয়েছে, রেল কর্তৃপক্ষ বহুবার আশ্বাস দিয়েও কথা রাখেনি। নাগরিক কল্যাণ সমিতির সম্পাদক বলছেন, “আমরা এর আগেও কয়েকবার স্মারকলিপি দিয়ে জানিয়েছিলাম। রেল শোনেনি। যতক্ষণ না সদুত্তর পাচ্ছি আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।’’ তবে বেলদা রেল স্টেশন ম্যানেজারের বক্তব্য, “এই বিষয়টি ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের ব্যাপার। আমরা ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানাব”।

আন্দোলনকারীদের দাবি, করোনা পরিস্থিতি ও লকডাউনের কারণে এই শাখায় দীর্ঘদিন ধরেই বন্ধ আছে ট্রেন চলাচল। কাজকর্ম না থাকায় টান পড়েছে বহু ব্যবসাদারদের ও রেল হকারদের রুটিরুজিতে। তাদের দাবি অবিলম্বে এইসব মানুষদের কথা ভেবে সরকারি পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন। এছাড়াও তাদের দাবি যত শীঘ্র সম্ভব ট্রেন চালানোর ব্যবস্থা করা হোক। যাতে ট্রেনের ওপর যাদের রোজগার নির্ভর করে তাদের অনাহারে ও বিনা চিকিৎসায় মরতে না হয়।

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
No Thoughts on লোকাল ট্রেন চালু করার দাবিতে বেলদায় বিক্ষোভ

Leave A Comment