অধিকার, মর্যাদা ও জীবন জীবিকা রক্ষার দাবী নিয়ে ব্যাঙ্গালোরে হয়ে গেল পরিযায়ী শ্রমিকদের সম্মেলন

আজকের খবর বিশেষ খবর শ্রমিক-আন্দোলন

Last Updated on 4 weeks by admin

নিজস্ব প্রতিনিধি, বাঙ্গালোর, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১:- 

‘পরিযায়ী শ্রমিক সংহতি নেটওয়ার্ক’ বা ‘মাইগ্র্যান্ট ওয়ার্কার্স সলিডারিটি নেটওয়ার্ক’ সংগঠনের কর্ণাটক শাখার উদ্যোগে ব্যাঙ্গালোরের ভিস্রান্থি নিলায়ন সি. এস. আই ওইমেনস্ হাউস সভাগৃহে বিভিন্ন পেশায় কর্মরত পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে আজ একটি সাধারন সভা হয়ে গেলো।

এই সভায় ব্যাঙ্গালোরের হেব্বাল, থুব্রা হাল্লি, ভব্যান হাল্লি, ইন্দ্রা নগরের প্রায়  ১৫০ জন পরিযায়ী শ্রমিক উপস্থিত ছিলেন। গৃহশ্রমিক,  নির্মান শ্রমিক, গার্মেন্টস শ্রমিক, ফুল বিক্রেতা,  সব্জি বিক্রেতা,  অ্যাপনির্ভর পরিষেবা ক্ষেত্রের শ্রমিক, সাফাইকর্মী সহ বিভিন্ন পেশার শ্রমজীবী মানুষ তাদের দুঃখ – দুর্দশা – আশা- আকাঙ্খার কথা তুলে ধরেন এই সভায়। এদের কেউ ওড়িশা, কেউ ছত্তীসগঢ়, কেউ দিল্লি, কেউ বিহার, কেউ পশ্চিমবঙ্গ সহ বিভিন্ন রাজ্যের নানা অঞ্চল থেকে ভিনরাজ্যে কাজ করতে গিয়েছেন পেটের টানে। পশ্চিমবঙ্গের কৃষ্ণনগর, বসিরহাট, নদিয়া, বর্ধমান, কাটোয়া, নবদ্বীপ, মুর্শিদাবাদ, সুন্দরবন ও নানা জেলার মানুষ পরিযায়ী শ্রমিক হিসাবে কাজে গেছেন।

লকডাউনের সময় কালেই বোঝা গিয়েছিল যে একরাজ্য থেকে অন্যরাজ্যে একটা বড়ো অংশের মানুষ রুজি রুটির টানে কাজ করতে যান। আজকের সভায় বক্তাদের প্রায় সকলের বক্তব্যেই তাদের জীবন সংগ্রামের নানা দিকের কথা উঠে এসেছে। উঠে এসেছে একদিকে নিরাপত্তাহীন স্বল্প মজুরির কাজের বাস্তবতা, অন্যদিকে উঠে এসেছে – প্রবাসী শ্রমিকদের নানারকম ভাবে হেনস্থার হওয়ার কথাও। এক গৃহশ্রমিকের কথায় – “রাতবিরেতে পুলিশ এসে তুলে নিয়ে যায়,  “বাংলাদেশী” তকমা দিয়ে থানায় নিয়ে গিয়ে মারধর করে এবং তারপর কিছু টাকা “ঘুষ” নিয়ে ছেড়ে দেয়।”

লকডাউনের সময় পর্বে তৈরি হয়েছিল ‘পরিযায়ী শ্রমিক সংহতি নেটওয়ার্ক’ (Migrant Workers Solidarity Network)। সেই সময় সারা দেশজুড়ে পরিযায়ী শ্রমিকদের সমস্যার কথাগুলো তুলে ধরে, সমস্যাগুলোর সুরাহা করার জন্য সরকারী উদ্যোগের দাবীতে সরব হয়েছিল এই নেটওয়ার্ক। এর পাশাপাশি পরিযায়ী শ্রমিকদের নানাভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল সদ্যগঠিত নেটওয়ার্কটি। সেই কাজের ধারাবাহিকতাতেই দেশের অন্যতম পরিযায়ী শ্রমিক-নিবিড় রাজ্য কর্ণাটকে পরিযায়ী শ্রমিকদের সংগঠিত করার লক্ষ্যেই এই চলমান উদ্যোগ – এমনটাই জানালেন এই সংগঠনটির কর্ণাটক শাখার সংগঠক রোজি, বিক্রমেরা। আজকের সভায় উপস্থিত ছিলেন কর্ণাটকের আরো কিছু গণ-সংগঠনের প্রতিনিধি।

সভা থেকে মূল দাবী হিসাবে উঠে আসে –

  • নাগরিক ও শ্রমিক হিসেবে পরিযায়ী শ্রমিকদের নূন্যতম অধিকার ও মর্যাদা দিতে হবে,
  • পুলিশী হেনস্থা বন্ধ করতে হবে,
  • অতিমারীকালে তাদের জীবনজীবিকা রক্ষার সঠিক ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে,
  • পরিযায়ী শ্রমিকদের সন্তানদের সঠিক শিক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে,
  • উপযুক্ত পুনর্বাসন না দিয়ে বস্তি উচ্ছেদ করা চলবে না ,
  • সুলভে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পরিষেবার বন্দোবস্ত করতে হবে।
Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
Tagged
No Thoughts on অধিকার, মর্যাদা ও জীবন জীবিকা রক্ষার দাবী নিয়ে ব্যাঙ্গালোরে হয়ে গেল পরিযায়ী শ্রমিকদের সম্মেলন

Leave A Comment