ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঢাকা সফরের বিরুদ্ধে বাংলাদেশে লাগাতার ছাত্র-যুব বিক্ষোভ

আজকের খবর গণ-আন্দোলন বিশেষ খবর

Last Updated on 6 months by admin

বিশেষ সংবাদদাতা, ২৫ মার্চ২০২১ :

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে যাওয়ার কথা। তাঁর বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকা সহ বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ হয়ে চলেছে এক সপ্তাহ জুড়ে। বিশেষ করে ছাত্র-যুবরা তাদের বক্তব্যে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন যে ২৬ মার্চ নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের দিন তাঁরা রাজপথে নেমে রাস্তা আটকাবেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরের বিরোধিতা করে আগামীকাল শুক্রবার বিকাল তিনটায় রাজধানীর শাহবাগে সমাবেশ আহ্বান করেছে ছাত্র, যুব ও শ্রম অধিকার পরিষদ।

গত কয়েকদিন ধরে ছাত্র যুবরা যে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন সেখানে পুলিশ তাদের ওপর অনৈতিকভাবে আক্রমণ চালায়। আজ দুপুরে মতিঝিলে বিক্ষোভও হয়। সেই বিক্ষভ চলাকালীন পুলিশি হামলায় কয়েকজন আহত হন ও কয়েকজনকে পুলিশ আটক করে। আটক নেতা-কর্মীদের মুক্তি দাবি করেছে ছাত্র, যুব ও শ্রম অধিকার পরিষদ।

সাংবাদিক সম্মেলনে সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক রহমান শাহবাগের সমাবেশে গ্রাম-শহর নির্বিশেষে সব অঞ্চলের মানুষ এবং আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামায়াতসহ সব দলকে সমবেত হওয়ার আহ্বান জানান। সংগঠনটির পক্ষ থেকে বলা হয়, রাষ্ট্র হিসেবে ভারত বা এর জনগণের প্রতি তাদের কোনো ক্ষোভ নেই। কিন্তু নরেন্দ্র মোদিকে তাঁরা কিছুতেই মেনে নেবেন না।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঢাকা সফরের প্রতিবাদে করা বিক্ষোভ মিছিলে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে আহত হয়েছে ২০-২৫ জন।

 বিক্ষোভকারীরা অভিযোগ করেছেন, বাংলাদেশ পুলিশ ও সরকারি দলের সহযোগী ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগ এই হামলা চালিয়েছে। ছাত্রলীগ অবশ্য তা অস্বীকার করেছে।

দু’দিন আগে, ২৩ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে মোদীর সফরের প্রতিবাদে প্রগতিশীল ছাত্র জোটের নেতৃত্ত্বে বিক্ষোভ করে বেশ কয়েকটি বাম দলের ছাত্র সংগঠন। বেলা সাড়ে চার টার দিকে বিক্ষোভ মিছিলটি টিএসসি থেকে শুরু হয়ে শাহবাদ ঘুরে আবার টিএসসি-তে এসে সমাবেশ শুরু করে।

 

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি এবং প্রগতিশীল ছাত্র জোটের অন্যতম কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক আল কাদেরি জয় বলেন, টিএসসিতে মোদীর কুশপুত্তলিকা দাহের কর্মসুচী থাকলেও ছাত্রলীগের ১০-১২ জন কর্মী এসে কুশপুত্তলিকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। সেসময় বাম ছাত্র সংগঠনের সদস্যরা তাদের বাধা দিলে তারা ঢিল ছোড়ে। পরে ছাত্রলীগের অন্য সদস্যরাও এসে তাদের নেতাকর্মীদের উপর মারধর করতে থাকে বলেও জানান আল কাদেরী জয়।

 

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মাসুদ রানা বলেন, ছাত্রলীগ কুশপুত্তলিকা ছিনিয়ে নিলেও পরে অবশ্য তারা আরেকটি কুশপুত্তলিকা বানিয়ে সেটি দাহ করেছেন।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি এবং প্রগতিশীল ছাত্র জোটের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক আল কাদেরি জয় বলেন, ভারত আগ্রাসন নীতিতে বাংলাদেশের নদীসহ অন্য নানা বিষয়ে দখলদারিত্ব চালাচ্ছে এবং ভারতের গুজরাটসহ বিভিন্ন দাঙ্গায় মোদীর সম্পৃক্ততা রয়েছে। যার কারণে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর আদর্শের সাথে মোদীর সফরের বিষয়টি কোনোভাবে যায় না। তাই তারা প্রতিবাদ করবে।

একই সাথে, বাংলাদেশের বেশ কিছু বামপন্থী সংগঠন ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফর নিয়ে জোর আপত্তি জানিয়ে বলছে, “বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে গুজরাতে দাঙ্গায় অভিযুক্ত নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফর তাদের কাছে কাম্য না”।

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
Tagged
No Thoughts on ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঢাকা সফরের বিরুদ্ধে বাংলাদেশে লাগাতার ছাত্র-যুব বিক্ষোভ

Leave A Comment