ইউরোপ আমেরিকার পর অস্ট্রেলিয়াতেও প্রশ্নের মুখে গুগুল- ফেসবুক

আজকের খবর

Last Updated on 8 months by admin

ইন্টারনেট দুনিয়ার বিপ্লবের পর গত এক দশকে বিশ্বজুড়ে প্রথম সারির কোম্পানি হিসেবে উঠে এসেছে গুগুল, ফেসবুক বা হোয়াটস আপ এঁর মতন সংস্থা। নানা পদ্ধতিতে গ্রাহকদের তথ্যকে পুঁজি করেই তারা গড়ে তুলেছে এই সাম্রাজ্য। কিন্তু বিগত বেশ কয়েকবছর ধরেই গ্রাহক তথা অন্য দের ব্যক্তিগত তথ্য অনৈতিক ভাবে ব্যবহার করা নিয়ে শোরগোল উঠেছে গুগুল, ফেসবুকের বিরুদ্ধে। অভিযোগ এসেছে নির্বাচনে অনৈতিক ভাবে হস্তক্ষেপের। এঁর ফলে ফেসবুক বা গুগল পুরো পৃথিবী জুড়ে একাধিক জায়গায় বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়ে ফেলছে। তাতে সম্প্রতি সংযোজন  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তিনটি সরকারী মামলা। অন্যদিকে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মামলার আগেই গুগল এর উপর ইউরোপীয় কমিশন ভালোরকম নজরদারি চালাচ্ছিল। কমিশন ইতিমধ্যে গুগল শপিং, গুগল অ্যাডসেন্স এবং অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম সম্পর্কিত কোটি কোটি ডলার জরিমানা করেছে।

এইবার গুগুলের বিরুদ্ধে আইন আনতে চলেছে বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ায় সরকার।   অস্ট্রেলিয়ান প্রতিযোগিতা এবং গ্রাহক কমিশন (ACCC)” 2020 সালের জুলাইয়ে একটি কোড তৈরি করেছিল যাতে তাদের নিউজ মিডিয়া কোম্পানিগুলি গুগল এবং ফেসবুকের মতো সংস্থাগুলির পরিষেবার সাথে তাদের সংবাদ সংযোজনের বিষয়ে দর কষাকষি করতে পারে।  এর অর্থ গুগল এবং ফেসবুককে এমন নিউজ সংস্থাগুলিকে টাকা দিতে হবে যাদের খবর, লিঙ্কগুলি গুগল আর ফেসবুকের প্ল্যাটফর্মগুলিতে আসবে।   যার মধ্যে রয়েছে ফেসবুক নিউজ ফিড, গুগল সার্চ, গুগল নিউজ, গুগল ডিসকভার । এই কোডটি এখনও আইন হয়ে উঠেনি।

গুগল জানিয়েছে, যদি উপরের কোডটি আইন হয়ে যায় তবে তারা অস্ট্রেলিয়ায় গুগল সার্চ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিতে পারে। ফেসবুক জানিয়েছে, কোড টি আইন হয়ে গেলে তারা অস্ট্রেলিয়ানদের তাদের প্ল্যাটফর্মে কোনও সংবাদ যোগ করতে দেবেনা।

বাস্তবত সাধারণ মানুষের ইন্টারনেট বা সামাজিক মাধ্যমের ব্যবহার এর উপর এই বড় বড় কোম্পানিগুলো একচেটিয়া আধিপত্য কায়েম করেছে। উন্নত বিশ্বে এই একচেটিয়ার বিরুদ্ধে পালটা প্রক্রিয়া শুরু হলেও আমাদের দেশে এই বিষয়ে সচেতনতার অভাব এখনো খুবই প্রকট। এমনকি এদেশে বহুসময় ফেসবুকের বিরুদ্ধে সরাসরি  বিজেপি দলের হয়ে পক্ষপাতিত্ব করার অভিযোগ উঠেছে। তাকে কেন্দ্র করে ফেসবুকের ভারতের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক আঁখি দাস গত অক্টোবরে পদত্যাগ করেছিলেন।

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
No Thoughts on ইউরোপ আমেরিকার পর অস্ট্রেলিয়াতেও প্রশ্নের মুখে গুগুল- ফেসবুক

Leave A Comment