লাক্ষাদ্বীপের প্রশাসক প্রফুল প্যাটেলের ‘জনবিরোধী’ নীতির বিরুদ্ধে বিক্ষোভে সামিল দ্বীপবাসীরা

আজকের খবর গণ-আন্দোলন বিশেষ খবর রাজনীতি

Last Updated on 4 months by admin

বিশেষ সংবাদদাতা, ৮ জুন,২০২১ :

ছয়-সাত মাস আগে ২০২০ সালের ৫ ডিসেম্বর, রাষ্ট্রপতির অনুমোদনে কেন্দ্রীয় সরকার লাক্ষাদ্বীপের প্রশাসক হিসাবে আরএসএস ঘনিষ্ঠ প্রফুল খোদা প্যাটেলকে নিযুক্ত করে। ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) প্রাক্তন নেতা প্যাটেল ছিলেন ২০১০ সালে গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। মোদীর ঘনিষ্ঠ এই নেতাকে লাক্ষাদ্বীপের প্রশাসক করার পিছনে সংঘ পরিবারের কিছু কৌশল আছে বলে অনেকেই মনে করছেন। প্রশাসক হয়ে আসার পর থেকেই তিনি বেশ কিছু জনবিরোধী পদক্ষেপ নিয়েছেন বলে অভিযোগ। প্রশাসক প্যাটেলের বিরুদ্ধে লাক্ষাদ্বীপের মানুষ গত কয়েকদিন ধরে বিক্ষোভ শুরু করেছে।

গত ৭ জুন (সোমবার) লাক্ষাদ্বীপে বহু মানুষ একযোগে জলে তলদেশে নেমে বিক্ষোভ মিছিল করে। তাদের দাবী –  এই কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের প্রশাসক প্রফুল প্যাটেলকে সরাতে হবে এবং  ‘জনবিরোধী’ উন্নয়নের বিষয়ক খসড়া আইন প্রত্যাহার করতে হবে। একই লাক্ষাদ্বীপবাসী তাঁদের বাড়ির সামনে ও বিভিন্ন জায়গায় ১২ ঘন্টা অনশন করেন।

বিক্ষোভকারীরা, সমুদ্রের জলের তলায়  এবং তাঁদের বাড়ির বাইরে  “এলডিআর প্রত্যাহার করো” (লাক্ষাদ্বীপ উন্নয়ন রেগুলেশন ২০২১ বাতিল করো) এবং “লক্ষদ্বীপে ন্যায়বিচার চাই” স্লোগান সহ প্ল্যাকার্ড নিয়ে মিছিল করেন। প্রতিবাদ করতে আসা লোকেরা “সেভ লক্ষদ্বীপ ফোরাম” এর ব্যানারে নিয়ে জড়ো হয়েছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায়ও এই ফোরামের নামে বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠন মিলিত হয়ে পোস্ট করেছেন।

লাক্ষাদ্বীপ ও প্রতিবেশী রাজ্য কেরালার বিভিন্ন রাজনৈতিক ও গণ সংগঠনগুলি অভিযোগ করেছে যে প্রশাসক প্রফুল প্যাটেল একতরফাভাবে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দ্বীপপুঞ্জতে গরুর মাংস নিষিদ্ধ করেছেন, উপকূলীয় অঞ্চলে কোস্টগার্ড আইনের অজুহাতে  জেলেদের মৎস সংরক্ষণ ছাউনি ভেঙে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

বিজেপি অবশ্য প্রফুল প্যাটেলকে সমর্থন করেছে। তাদের বক্তব্য –  বিজেপি বিরোধী স্থানীয় রাজনীতিবিদদের “দুর্নীতিমূলক” কাজ  বন্ধ করার চেষ্টা করে লাক্ষাদ্বীপের প্রশাসক সেখানে উন্নয়নের সূচনা করেছেন। সেই জন্যই নাকি ‘দুর্নীতিবাজরাই’ প্যাটেলের বিরোধীতা করছে।

কোচিতে, কেরালার ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের সংসদ সদস্যরা কেন্দ্রীয় সরকারের প্রস্তাবিত “জনবিরোধী আইন” এলডিআর প্রত্যাহারের দাবিকে সংহতি জানিয়ে লাক্ষাদ্বীপ প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। কেরালার এলডিএফ-এর অন্যতম দল সিপিআইয়ের যুব শাখা এআইওয়াইএফও প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ জানিয়েছিল। কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নও  কেন্দ্রের “জনবিরোধী আইন” এলডিআর-এর বিরোধীতা করেছেন।

লাক্ষাদ্বীপ আইইউএমের প্রাক্তন সাংসদ হামদুল্লাহ সাইদ সংবাদমাধ্যমের কাছে বলেছেন “দ্বীপবাসীরা শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ করেছে। প্রায় সব অফিস, দোকান এবং বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। দ্বীপের প্রায় প্রত্যেকেই এই প্রতিবাদে অংশ নিয়েছিল”।

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
Tagged
No Thoughts on লাক্ষাদ্বীপের প্রশাসক প্রফুল প্যাটেলের ‘জনবিরোধী’ নীতির বিরুদ্ধে বিক্ষোভে সামিল দ্বীপবাসীরা

Leave A Comment