শাহীনবাগের অবস্থানে গুলি-চালনাকারী কপিল গুর্জরকে বিজেপি দলে স্বাগত জানিয়ে কি লজ্জা পেল?

রাজনীতি

Last Updated on 9 months by admin

গতবছর ডিসেম্বর থেকে দেশব্যাপী নাগরিকত্ব সংশোধন আইন (সিএএ) এর বিরুদ্ধে মিছিল, অবস্থান ও বিক্ষোভ চলেছে। তারমধ্যে শাহীনবাগের নাম সর্বাগ্রে উঠে এসেছে। শাহীনবাগের অবস্থান বিজেপি তথা কেন্দ্র সরকারের গলার কাঁটা হিসাবে বিঁধেছিল। সেই সময় বিজেপি-র বিধায়ক ও সাংসদরা নানা উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখে। অভিযোগ – এই উস্কানিমূলক বক্তব্যের কারণে দিল্লিতে দাঙ্গা বাঁধে। দিল্লির সেই শাহীনবাগের অবস্থানস্থলে গিয়ে গত ফেব্রুয়ারি মাসে কপিল গুর্জর নামে এক যুবক অবস্থানকারীদের অশালীন ভাষায় গালাগাল করে ও শূন্যে গুলি চালায়। সেই অভিযোগে পরে দিল্লি পুলিশ গুর্জরকে গ্রেপ্তার করে।

ঘটনার এক নাটকীয় মোড় নেয় গত বুধবার। সেই কপিল গুর্জর বিজেপি-র গাজিয়াবাদ অফিসে গিয়ে দলের সদস্য পদ নেন। তবে কয়েক ঘন্টা পরে তার সদস্যপদ বাতিল করা হয় বলে বৃহস্পতিবার জানা যায়। কিন্তু এই যোগদান ও সদস্যপদ বাতিলের নাটক কেন – এই প্রশ্ন বিরোধীরা করছেন।

বিজেপির জেলা সভাপতি সঞ্জীব শর্মা  সংবাদমাধ্যমের কাছে বলেছেন যে কপিল গুর্জরের অতীত সম্পর্কে তাঁর কোনোকিছু জানা ছিল না। তিনি  জানান, “গুর্জর দলে যোগ দিতে সমর্থকদের নিয়ে এসেছিলেন। আমরা তার ফৌজদারি মামলা সম্পর্কে জানতাম না। যত তাড়াতাড়ি আমরা বুঝতে পেরেছি, আমরা তাঁর সদস্যপদটি বাতিল করে দিয়েছি” । যদিও বিরোধী দলের বক্তব্য যে সঞ্জীব শর্মার সঙ্গে কপিল গুর্জরকে আগেও দেখা গেছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া গত ১ ফেব্রুয়ারির ঘটনার ভিডিওতে, কপিল গুর্জরকে বলতে শোনা গেছে, “আমাদের দেশ কেবল হিন্দুদের।এখানে শুধু হিন্দুরাই থাকবে,  অন্য কেউ নয়।” এছাড়াও অবস্থানকারীদের কটুক্তি করতে শোনা গেছে। পুলিশের হাতে ধরা পড়ার আগে তিনি শূন্যে দু-তিন রাউন্ড গুলি ছুঁড়েছিলেন।

বিজেপিতে যোগদানের পরে কপিল গুর্জর সাংবাদিকদের বলেছিলেন যে – “বিজেপি দলটি হিন্দুত্বের আদর্শকে  শক্তিশালী করছে এবং সেই কারণে তিনি এই পার্টিতে যোগ দিয়েছেন ”।

শাহীনবাগে তাঁর গুলি ছোঁড়ার  ভিডিও যখন প্রকাশ পেয়েছিল, বিজেপি বলেছিল যে গুর্জরের পরিবারের সঙ্গে আম আদমি পার্টি-র যোগাযোগ রয়েছে। বিজেপি-র বদনাম করতে আম আদমি পার্টির ইন্ধনে গুর্জর এই ঘটনা ঘটিয়েছিল।

আম আদমি পার্টি আজ জানিয়েছে, “গুর্জরের বিজেপিতে অন্তর্ভুক্তি স্পষ্টভাবে দেখাচ্ছে যে, আগে থেকেই বিজেপি-র পরিকল্পনা ছিল দিল্লিতে দাঙ্গা সৃষ্টি করা“।

বিরোধী দলগুলির বক্তব্য – গুর্জরকে দলের সদস্য করার মাধ্যমে বিজেপি-র অবস্থান স্পষ্ট যে তারা যেনতেনপ্রকারে দেশজুড়ে হিংসার বাতাবরণ তৈরি করতে চায়। এখন যতই তারা গুর্জরের সদস্যপদ বাতিলের নাটক করুক না কেন, এদের গোপন বোঝাপড়া আছে ও আগামী দিনে থাকবে বলে তাদের অভিযোগ।

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
No Thoughts on শাহীনবাগের অবস্থানে গুলি-চালনাকারী কপিল গুর্জরকে বিজেপি দলে স্বাগত জানিয়ে কি লজ্জা পেল?

Leave A Comment