কর্ণাটকে পুলিশ হেফাজতে থাকা দলিত যুবককে মূত্র পান করতে বাধ্য করলো পুলিশ

আজকের খবর বিভাগ-বহির্ভূত বিশেষ খবর

Last Updated on 4 months by admin

বিশেষ সংবাদদাতা, ২৩ মে,২০২১ :

কোভিড অতিমারীর মধ্যেই আরেকটি অমানবিক ঘটনার সাক্ষী থাকল গোটা ভারতবর্ষ তথা কর্ণাটক। উক্ত রাজ্যের চিক্কামাগালুরু জেলার মুড়িগেরে তালুকের গনিবিড়ু পুলিশ স্টেশনের সাব- ইন্সপেক্টর অর্জুন পুলিশি হেফাজতে থাকা দলিত যুবক পুনিত কেএল-কে মাটি থেকে মূত্র চাটতে ও পান করতে বাধ্য করে। গত ১০ই মে গ্রামবাসীদের অভিযোগের ভিত্তিতে সকাল ১১টার সময় কিরাগুন্ডার বাসিন্দা পুনিত কে গ্রেফতার করে। গ্রামেরই এক দম্পতির মধ্যে ঝামেলা পাকানোর অভিযোগ ছিল তার বিরুদ্ধে। এক মহিলা ও তার এক প্রতিবেশী কিছুদিন আগে নিরুদ্দেশ হন। ছয় মাস আগে নিরুদ্দেশ হওয়া ঐ মহিলাকে পুনিত ফোন করলে তা জানতে পেরে ঐ মহিলার পরিবার পুনিতের সাথে দেখা করে তাকে এরকম করতে বারণ করে, যেহেতু বিবাহিত মহিলাকে ফোন করা শোভা পায় না। এই সূত্র ধরেই ঐ মহিলার পরিবারের লোকজন পুনিত ঐ নিরুদ্দেশের ঘটনার সাথে জড়িত ভেবে তার বাড়িতে চড়াও হয়। পুনিত এই ঘটনার সাথে যুক্ত নয় বারবার বলতে থাকলেও তার কথা কেউ শোনে না। তখন ভয় পেয়ে পুনিত নিজের নিরাপত্তার খাতিরে ১১২ তে ফোন করে পুলিশকে ডাকে। পুলিশ তাঁকে জোর করে থানায় নিয়ে যায়।

‘দ্য হিন্দু’-র রিপোর্ট অনুযায়ী পুনিত হেফাজতে থাকাকালীন সময় পুলিশি নির্যাতনের অভিযোগ এনেছে। জল খেতে চাওয়ায় অর্জুন জল দিতে শুধু অস্বীকারই করে না উপরন্তু চুরির দায়ে জেল হেফাজতে থাকা চেতন বলে এক ব্যক্তিকে পুনিতের মুখের উপর মূত্রত্যাগ করতে বাধ্য করে। কন্নড় মিডিয়াতে পুনিত বলেন ‘চেতন প্রথমে মূত্রত্যাগ করতে অস্বীকার করে। কিন্তু নৃশংস অত্যাচারের ভয় দেখিয়ে তাকে আমার উপর মূত্রত্যাগ করতে বাধ্য করে। শুধু এইটুকুই নয় মাটিতে পড়ে থাকা মূত্রও আমাকে চাটতে বাধ্য করে’।

নৃশংসভাবে মারধর করার পর পুনিতকে ঐদিন রাত ১০.৩০ টায় ছাড়া হয়। পুনিতের পরিবার যখন সন্ধ্যা ৬টার সময় তার খোঁজ নিতে আসে তখন তাদেরকেও দেখা করার অনুমতি দেওয়া হয় না। প্রবল অত্যাচারের মুখে পড়ে পুনিতের ‘দোষ স্বীকার’ করা ছাড়া আর কোনও উপায় ছিল না।

এর প্রেক্ষিতে ন্যায়বিচারের দাবীতে পুনিত গতকাল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। সাব-ইন্সপেক্টর অর্জুনের বিরুদ্ধেও যাতে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয় সে ব্যাপারেও নজর দিতে বলেছে।

প্রখ্যাত কন্নড় অভিনেতা চেতন পুনিতের ন্যায়বিচারের দাবীতে ও পিএসআই অর্জুনের গ্রেপ্তারির দাবীতে টুইট করেছেন।

বিগত কয়েকবছর ধরেই কর্ণাটকে দলিতদের মানবাধিকার  লঙ্ঘনের একাধিক অভিযোগ সামনে এসেছে। গত ১০ই ফেব্রুয়ারি নেলামঙ্গলা চলো- র ডাকে সাড়া দিয়ে ভীম আর্মি প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ বেঙ্গালুরুর নিকটবর্তী শহর নেলামঙ্গলায় এসে দলিত আন্দোলনকর্মী ও লেখক বিআর ভাস্কর প্রসাদের পাশে দাঁড়ান। এই ধরণের অমানবিক ঘটনার বিরুদ্ধে লাগাতার বড় আন্দোলন জমায়েত হওয়া সত্ত্বেও কর্ণাটকে আদিবাসী ও দলিতদের বিরুদ্ধে অত্যাচার আজও অব্যাহত।

গতকাল কন্নড় দৈনিক ‘ভীম বিজয়’-এর মাধ্যমে এই ঘটনা সামনে আসার পর অনেক প্রগতিশীল ও জাতিবাদ বিরোধী সংগঠন এবং ব্যক্তি এই ঘটনাকে ধিক্কার জানিয়ে পুনিতের ন্যায় বিচারের দাবী জানিয়েছে। এই পুলিশি নির্যাতনের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে।

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
Tagged
No Thoughts on কর্ণাটকে পুলিশ হেফাজতে থাকা দলিত যুবককে মূত্র পান করতে বাধ্য করলো পুলিশ

Leave A Comment