কৃষক হত্যায় অভিযুক্ত সরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর ছেলেসহ মূল অভিযুক্তরা এখনও পলাতক

আজকের খবর কৃষক আন্দোলন বিশেষ খবর

Last Updated on 2 weeks by admin

বিশেষ সংবাদদাতা, ৮ অক্টোবর, ২০২১ :

আদালতের সমন অনুযায়ী নির্ধারিত সময়, সকাল ১০টায় লাখিমপুর খেরির পুলিশ লাইনের ক্রাইম ব্রাঞ্চ অফিসে কৃষকদের ওপর গাড়ী চাপা দেওয়ায় মূল অভিযুক্ত আশিষ মিশ্র হাজির হননি। পুলিশ জানিয়েছে যে আশিষ মিশ্রের সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না। তিনি নাকি পলাতক ও তিনি ঘন ঘন জায়গা পরিবর্তন করে গা ঢাকা দেওয়ার চেষ্টা করছেন বলে জানানো হয়েছে। উত্তর প্রদেশ পুলিশের বেশ কয়েকটি দল তাকে খুঁজছে।

লখিমপুর খেরি কৃষক গণহত্যার সাথে জড়িত আশিষ মিশ্র, সুমিত জয়সওয়াল, অঙ্কিত দাস এবং অন্যান্য অপরাধীদের কাউকে পুলিশ গ্রেফতার না করায় সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা উদ্বেগ প্রকাশ করছে। অভিযোগ, উত্তর প্রদেশ সরকার এবং আশিস মিশ্রর বাবা কেন্দ্রীয় সরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় ​​মিশ্র টেনী ক্ষমতার অপপ্রয়োগ করে অপরাধীদের গা ঢাকা দিতে ও পালিয়ে বেড়াতে সাহায্য করছে।

যদিও এটা স্পষ্ট যে সুমিত জয়সওয়াল কৃষক হত্যায় ব্যবহার করা “থার” গাড়িতে ছিলেন ও সেই গাড়ি থেকে উনি পালিয়ে যাচ্ছিলেন বলে অভিযোগ এবং পরে তাকে মিডিয়াতে বাইট দিতে দেখা গেছে। একইভাবে, ঘটনায় ধরা পড়া একজনের পুলিশি জেরার ভিডিও থেকে পরিষ্কার দেখা যাচ্ছে যে তিনি বলছেন অঙ্কিত দাস “ফরচুনার” গাড়িতে ছিলেন। সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার দাবি, আশিস মিশ্র, সুমিত জয়সওয়াল, অঙ্কিত দাস এবং অন্যান্যরা যারা স্পষ্টভাবে কৃষক গণহত্যায় জড়িত, তাদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করতে হবে।

গতকাল সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ লখিমপুর খেরির ঘটনায় কতজন গ্রেপ্তার হয়েছে তার বিস্তারিত বিবরণ চেয়ে পাঠিয়েছেন। খবরে জানা যাচ্ছে , এখনো পর্যন্ত দু’ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং তিন জনকে আটক করা হয়েছে কিন্তু আশীষ মিশ্রকে এখনও পুলিশ খঁজে পায়নি। সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার অভিযোগ – প্রকৃত ঘটনা হল অপরাধী এখনো পুলিশের সাহায্যে নিখোঁজ এবং এই ব্যাপারগুলিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পরিবার জড়িত – ব্যাপারটাই কেমন অদ্ভুত এবং এটাই উত্তরপ্রদেশ তথা ভারতবর্ষের আইন শৃঙ্খলার প্রকৃত অবস্থা কে বুঝিয়ে দেয়। মোর্চা যোগী ও মোদি সরকারকে সাবধান করে দিয়ে বলেছে  যে অবিলম্বে আশীষ মিশ্র কে গ্রেফতার করতে হবে।

বিজেপি বিরোধী দলগুলির অভিযোগ – লখিমপুর খেরির যে বেদনাদায়ক ভিডিও ফুটেজ সামনে এসেছে ; তারমধ্যে অসাবধানী শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদী কৃষকদের পিষে দেওয়ার ঘটনাটিও আছে যাতে আশীষ মিশ্র ও তার সহযোগীদের উদ্দেশ্য পরিষ্কার ফুটে উঠেছে। একটি ছোট ভিডিও ক্লিপ জনসমক্ষে এসেছে যেখানে কৃষকরা পুলিশের সঙ্গে উত্তেজিতভাবে কথাবার্তা চালাচ্ছে এবং পুলিশরা দোষীদের দুর্ঘটনাস্থল থেকে পালাতে সাহায্য করছে। সংযুক্ত কিষান মোর্চা দাবি জানিয়েছে যে মোদি সরকার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রকে বরখাস্ত করে ন্যুনতম নৈতিকতার পরিচয় দিক এবং যদি মন্ত্রী অজয় মিশ্র টোনি তাঁর পদেই থেকে যান তাহলে সুবিচারের আশা জলাঞ্জলি দিতে হবে।

এছাড়াও সংযুক্ত কিষান মোর্চা ভারতের রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ করেছে যে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাট্টার কে তার সাংবিধানিক পদ থেকে সরিয়ে দিতে কারণ তিনি সাংবিধানিক পদের অবমাননা করে বিজেপি কর্মীদের উৎসাহিত করেছেন লাঠি চালিয়ে কৃষকদের মারার জন্য। তাঁর খোলাখুলি ভাষণের পর বিজেপি কর্মীরা কৃষকদের উপর চড়াও হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন কিষাণ মোর্চার নেতারা।

সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা আজ বলেছে যে উত্তরপ্রদেশ সরকার কর্তৃক গঠিত ১ সদস্যের বিচার বিভাগীয়  কমিশন তাদের দাবি অনুযায়ী নয় এবং কিষাণ মোর্চা সহ সারা দেশের কৃষক সেই কমিশনের ওপর  আস্থা রাখতে পারছে না। জনসাধারণের চাপে এবং সুপ্রিম কোর্টের শুনানির কারণে, লখিমপুর খেরি কৃষক হত্যাকাণ্ডের বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিশন গঠন করার বিষয়ে উত্তরপ্রদেশ সরকারের ৬ই অক্টোবর ২০২১ তারিখের বিজ্ঞপ্তি, আজ বাতিল করা হয়েছে বলে মনে করছে কিষাণ মোর্চা। সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার নেতৃত্বের দাবি – লখিমপুর খেরি ঘটনা, যার লক্ষ্য ছিল প্রতিবাদকারীদের ভয় দেখানো এবং দমন করা, পূর্ব পরিকল্পিত ও ইচ্ছাকৃত হত্যাকান্ড কিনা তা নিয়ে তদন্ত হওয়া উচিত। সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা এক বিবৃতিতে বলেছে যে  আদিত্য যোগী সরকারের বিজ্ঞপ্তিতে, কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রীর দেওয়া খোলা হুমকির কথা উল্লেখ করা হয়নি এবং তারপরে রবিবার, ভয়াবহ ঘটনাগুলিতে মন্ত্রী ও তার ছেলের ভূমিকা সম্পর্কে  কিছুই বলা নেই। উপরন্তু, বিজ্ঞপ্তিটিতে দু’মাসের সময়সীমা দেওয়া হয়েছে এবং সময়সীমা বাড়ানো্ যেতে পারে বলেও বলা হয়েছে। এই সব থেকে, এটা স্পষ্ট যে বিচার বিভাগীয় তদন্তের এই আদেশটি মূলত সময় পার করে দিয়ে, প্রকৃত ঘটনাগুলিকে ধামা চাপা দেওয়া এবং ক্ষতিগ্রস্তদের ন্যায়বিচার পাওয়া থেকে বঞ্চিত করার চেষ্টা। বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে – যে একজন সাংবাদিককেও সেদিন হত্যা করেছে আশীষ মিশ্রের নেতৃত্বে বিজেপি-র বাহিনী – সেই সাংবাদিকের পরিবারকে তাদের অভিযোগ পরিবর্তন করার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে এবং এই অভিযোগের ভিত্তিতে এখনও পর্যন্ত এফআইআর দায়ের করা হয়নি।

সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা জানিয়েছে যে আজ সকালে হরিয়ানার আম্বালায়, লখিমপুর খেরির ঘটনার মতো ভয়ংকর স্মৃতি জাগিয়ে, সংসদ সদস্য নায়েব সায়িনীর একটি ইনোভা প্রতিবাদী কৃষক ভবনপ্রীত সিংয়ের উপর দিয়ে ছুটে যায়। প্রসঙ্গত উল্লেখ করা যায় যে বিজেপি সাংসদ নয়াব সায়নী এবং হরিয়ানা সরকারের মন্ত্রী সন্দীপ সিংকে আম্বালার নারায়ণগড়ে কালো পতাকা দেখিয়ে প্রতিবাদ জানাতে কৃষকরা জড়ো হয়েছিলেন। সেই সময় বিজেপি সাংসদের গাড়ি বিক্ষোভকারীদের দিকে এগিয়ে যায় এবং তাদের একজনকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। ভবনপ্রীত সিংকে হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে তার আঘাতের জন্য চিকিৎসা করানো হয়েছে।

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
Tagged
No Thoughts on কৃষক হত্যায় অভিযুক্ত সরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর ছেলেসহ মূল অভিযুক্তরা এখনও পলাতক

Leave A Comment