নয়া কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার ডাকা ভারত বন্‌ধে সাড়া দিল গোটা দেশের মানুষ

আজকের খবর কৃষক আন্দোলন বিশেষ খবর

Last Updated on 4 weeks by admin

নিজস্ব সংবাদদাতা, ২৭ সেপ্টেম্বর,২০২১ :

নয়া কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে কৃষক সংগঠনগুলির যৌথ মঞ্চ সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার আহ্বানের ভারত বন্‌ধকে সফল করতে সোমবার  গোটা দেশজুড়ে দিনভর রাস্তায় থাকলেন বিভিন্ন সংগঠনের কর্মী সমর্থকসহ সাধারণ গণতান্ত্রিক মানুষরা। বিভিন্ন রাজ্যের রাজধানী শহরসহ নানা এলাকায় মিছিল, পিকেটিং, পথ অবরোধের মাধ্যমে মোদী সরকারের কৃষক ও শ্রমিক বিরোধী আইন, নীতিকে তীব্র ধিক্কার জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়ন ও ,ফেডারেশনের কর্মী সমর্থকরা।

ছাত্রছাত্রীরা মিছিলে বন্‌ধের আবেদন নিয়ে সামিল হয় কলকাতার রাজপথে।

এদিন সকাল থেকেই দিল্লি, মুম্বাই, চেন্নাই, ব্যাঙ্গালোর, চন্ডীগড়, কলকাতা সহ নানা শহরে পথে নামেন কৃষক আন্দোলনের সমর্থকরা। কৃষক শ্রমিকদের দাবি আদায়ের এই ধর্মঘটকে সফল করতে ছাত্র-যুবদের সক্রিয় ভুমিকা নিতে দেখা গেছে। ছাত্রছাত্রীদের কথায়, এই বন্‌ধে শ্রমিক কৃষকের দাবীর পাশাপাশি তারা তাদের দাবীও তুলে ধরছে – নয়া শিক্ষানীতি বাতিল করতে হবে।

কৃষক সংগঠন, শ্রমিক সংগঠন ও বামপন্থী দলের কর্মীদের উদ্যোগেও  এদিন মিছিল সংগঠিত করা হয়েছে।

কৃষকদের ডাকা ধর্মঘটের পরিপ্রেক্ষিতে দিল্লিতে বাতিল করা হয়েছে বেশ কয়েকটি ট্রেন। সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা রাজধানী দিল্লিতে আজ সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিক্ষোভ কর্মসূচী নিয়েছিল। তাঁরা বলেছেন যে আজ ধর্মঘটের ফলে দিল্লির সব প্রান্তের জাতীয় সড়ক স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে। দিল্লি-মিরাট এক্সপ্রেসওয়ে গাজীপুর বিক্ষোভ স্থানের কাছে জাতীয় সড়ক সম্পূর্ণ অবরুদ্ধ ছিল, যা উত্তরপ্রদেশ থেকে আসা যানবাহনকে আটকে দেয়। যদিও, বিক্ষোভকারীরা বলেছেন যে জরুরি পরিষেবাগুলিকে ছাড় দেওয়া হয়েছিল। এদিন সিংঘু  সীমান্তও অবরুদ্ধ ছিল। বন্‌ধের মিছিল আটকাতে গিয়ে দিল্লির সীমান্ত যানজটে আটকে ফেলে পুলিশই। আজ অবরোধ চলাকালীন সিঙ্ঘু বর্ডারে আন্দোলনকারী ৫৪ বছর বয়সি এক কৃষক মারা গিয়েছেন।

সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার ডাকে আজকের সারা ভারত ধর্মঘট শান্তিপূর্ণভাবে চলেছে।  এদিনের ধর্মঘটে শামিল হওয়া চেন্নাইয়ের ধর্মঘটীদের ওপর পুলিশী আক্রমণের অভিযোগ উঠে এলো। জানা গেছে, তিনটি কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত বিক্ষোভকারীরা আজ সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার ডাকা ভারত বন্‌ধের সমর্থনে চেন্নাইয়ের আন্না সালাই এলাকায় মিছিল করতে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে ধর্মটের সমর্থকরা মিছিল করতে গেলে আন্দোলনকারীদের পুলিশ আটক করে বলে অভিযোগ।

দিল্লির গাজীপুর বর্দারে হয় অবরোধ। কৃশকরা রাস্তা জুড়ে বসে পড়েন। এতে জাতীয় সড়ক অবরুদ্ধ হয়ে যায়।

পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা বন্‌ধে সামিল হয়।

উড়িষ্যায় রেল অবরোধ করেন বন্‌ধের সমর্থকরা।

উত্তরপ্রদেশে কৃষকরা মিছিল করেন। রাস্তা অবরোধ করেন।

পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উড়িষ্যা, কেরালা সহ সব রাজ্যেই কৃষকদের ডাকা বন্‌ধে সাধারণ মানুষ সাড়া দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন কৃষক আন্দোলনের নেতারা। ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের (বিকেইউ) নেতা রাকেশ টিকাইত বলেছেন যে কৃষকরা ১০ বছরের জন্য প্রতিবাদ করতে প্রস্তুত, কিন্তু “কালো” আইনগুলি প্রয়োগ করতে দেবেন না। সোমবার তিনি টুইটারে লিখেছেন, “দেশজুড়ে ভারত বন্‌ধে মানুষের সমর্থন পাওয়া গিয়েছে। সাধারণ মানুষ যে সমস্যায় পড়েছেন, তার জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী। কিন্তু মনে রাখবেন কৃষকরা গত ১০ মাস ধরে সমস্যায় আছে। আমরা তো সরকারের সাথে আলোচনায় রাজি; কিন্তু সরকার চূপ করে বসে আছে।“

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
Tagged
No Thoughts on নয়া কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার ডাকা ভারত বন্‌ধে সাড়া দিল গোটা দেশের মানুষ

Leave A Comment