“প্রধান মন্ত্রীর দপ্তর চালাচ্ছে বড় বড় কর্পোরেটরা।“ – রাকেশ টিকাইত

আজকের খবর কৃষক আন্দোলন বিশেষ খবর

Last Updated on 6 months by admin

বিশেষ সংবাদদাতা, ৪ এপ্রিল,২০২১ :

শুক্রবার, ২ এপ্রিল, আলওয়ারে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার অন্যতম কৃষক নেতা রাকেশ টিকাইতের গাড়ির উপর হামলা হয়েছিল বলে অভিযোগ। তিনি অভিযোগ করেছিলেন যে এই হামলার পেছনে বিজেপি-র সদস্যরা ছিলেন।

তিনি বলেছিলেন, “রাজস্থানের আলওয়ার জেলার তাতারপুর চত্বরে বানসুর রোডে বিজেপির গুন্ডারা তাঁকে আক্রমন করে। এটা গণতন্ত্র হত্যার এক চিত্র।”  তার সমর্থকরা এই ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তা আটকের ডাক দিয়েছিলেন। এই ঘটনার পর এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছিল।

পুলিশ কর্তাদের মতে, রাকেশ টিকাইত বনাসুর রোডে দিয়ে যাচ্ছিলেন, তখন তাঁর গাড়িতে পাথর ছোঁড়া হয় ও রড দিয়ে গাড়ির উপর মারা হয়।  তবে টিকাইত আহত হন নি বলে জানা গেছে। অবশেষে, টিকাইতকে অন্য গাড়িতে স্থানান্তরিত করা হয় এবং পরে পুলিশ সন্দেহভাজন হিসাবে দু’জনকে গ্রেপ্তার করে।

 

শুক্রবার  রাকেশ টিকাইতের উপর হামলার অভিযোগে এখনও পর্যন্ত মোট চৌদ্দ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) অধীনস্থ বিজেপি-র ছাত্র সংগঠন অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের (এবিভিপি) কর্মী কুলদীপ যাদব আছেন।

তাঁর গাড়ীর উপর হামলার পরে  ক্ষুব্ধ রাকেশ টিকাইত সতর্ক করে দিয়েছেন যে যদি সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার সদস্যদের উপর এ জাতীয় হামলা অব্যাহত থাকে তবে বিজেপির সাংসদ ও বিধায়করাও রাস্তায় হাঁটতে পারবেন না। তবে তিনি এই হামলার বিরুদ্ধে কোনো রকম আক্রমণাত্মক ব্যবস্থা না নেওয়ার জন্য  কৃষকদের  কাছে আবেদন করেছেন।

 

গত শনিবার, ৩ এপ্রিল আলীগড় জেলার গন্ডা অঞ্চলে বিশাল কিষাণ মহাপঞ্চায়েতে কৃষকদের  উদ্দেশ্যে রাকেশ টিকাইত বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, “প্রধান মন্ত্রীর দপ্তর চালাচ্ছে বড় বড় কর্পোরেটরা। …  দেখে মনে হচ্ছে কর্পোরেটরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ঢুকে পড়েছে। আমাদের তাদের বের করে দেওয়ার দায়িত্ব নিতে হবে।”  তিনি আরো বলেন, “জনবিরোধী তিনটি কৃষি আইন পাস হওয়ার আগেই বড় কর্পোরেট সংস্থাগুলো বড় বড় গোডাউন তৈরি করে ফেলেছিল। এটাই  প্রমাণ করে যে তারা জানত যে এই কৃষি আইন পাস হবেই।“  তিনি বর্তমান সরকারকে “কোম্পানি-রাজ” বলে আখ্যায়িত করেছেন।

এই মহা পঞ্চায়েতে ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের জাতীয় মুখপাত্র কৃষকদের বলেন, “২০২১ হলো আন্দোলনের বছর। আপনারা আপনার ট্রাক্টর, তাঁবু এবং জ্বালানি প্রস্তুত রাখুন আন্দোলনে অংশ নেওয়ার জন্য।“

তরুণ প্রজন্মের কাছে তিনি বার্তা দিয়েছেন যে নয়া কৃষি আইনের বিরুদ্ধে প্রচারের জন্য টুইটার সহ নানা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কৃষকদের দুর্দশার কথা ও  কৃষক আন্দোলনের বার্তা পৌঁছে দিতে হবে কারণ মূলধারার মিডিয়া সেন্সর করা হচ্ছে  এবং প্রায় সব মিডিয়াকে শাসক কিনে নিয়েছে।

তিনি বলেন, বড় বড় কর্পোরেটরা ছোট সংস্থা, ছোট দোকানদার এবং গ্রামীণ সাপ্তাহিক বাজারকে ব্যবসা করতে দেবে না। তাদের মেরে ফেলবে।

তিনি জানান, গণমাধ্যমের কাছে বক্তব্য রাখার সময় বি কে ইউ-এর সাধারণ সম্পাদক যুধভির সিংকে গুজরাট পুলিশ  ধরে নিয়ে গেছে। তিনি বলেন, “এটাই কি গুজরাট মডেল? গুজরাট রাজ্য শেকলে বাঁধা আছে। আমি গুজরাটে যাচ্ছি। আমাদের এই রাজ্যকে মুক্ত করতে হবে।”

 

সূত্র : gaurilankesh news

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
Tagged
No Thoughts on “প্রধান মন্ত্রীর দপ্তর চালাচ্ছে বড় বড় কর্পোরেটরা।“ – রাকেশ টিকাইত

Leave A Comment