পাঞ্জাবের দুই ইউনিয়নকে সংযুক্ত মোর্চা থেকে সাময়িক বরখাস্ত ও মঞ্চে ওঠায় নিষেধাজ্ঞা

আজকের খবর কৃষক আন্দোলন

Last Updated on 8 months by admin

বিশেষ সংবাদদাতা, ৮ই ফেব্রুয়ারি: কিছুদিন আগে সামাজিক মাধ্যম মারফত জানা যায় যে কৃষক আন্দোলনে সামিল পাঞ্জাবের ৩২টি ইউনিয়নের সংযুক্ত মোর্চা থেকে ২টি ইউনিয়নকে সাময়িক বরখাস্ত ও তাদের নেতাদের মঞ্চে ওঠায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এই বিষয়ে অন্যান্য ইউনিয়নগুলির সাথে কথা বলার চেষ্টা করা হয়। তাতে বেশিরভাগ ইউনিয়নই এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

দুই ইউনিয়ন আজাদ কিষাণ কমিটি (দোয়াবা)-র সভাপতি হরপাল সঙ্ঘ বিকেইউ (ক্রান্তিকারি)-র নেতা সুরজিৎ সিং ফুলকে প্রজাতন্ত্র দিবসে হিংসার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার তরফ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এই দুই ইউনিয়ন সংযুক্ত মোর্চার অংশ ছিল। তাদের সাময়িক বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোর্চার বাকি ৩০টি পাঞ্জাবের ইউনিয়ন। এই সিদ্ধান্ত গত ২৯শে জানুয়ারিই নেওয়া হয়েছিল, কিন্তু জনসমক্ষে প্রকাশ করা হয়নি। হরপাল সঙ্ঘ টুইট করে এই তথ্যের সত্যতা স্বীকার করেছেন এবং বলেছেন সংযুক্ত মোর্চার বরিষ্ঠ নেতাদের থেকে এই শাস্তির কারণ জানা যাবে।

এক কৃষক সংগঠনের নেতা জানিয়েছেন, “ওরা সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার মঞ্চে আসতে বা ভাষণ দিতে কোনটাই পারবে না।

ক্রান্তিকারি কিষাণ ইউনিয়নের সভাপতি ও সংযুক্ত মোর্চার অন্যতম কো-অর্ডিনেটর ডাঃ দর্শন পাল জানালেন, “এরকম একটি অভিযোগ আছে যে হরপাল সঙ্ঘ ও সুরজিৎ ফুল সংযুক্ত মোর্চার নির্দিষ্ট রুটের বাইরে বেরিয়ে আউটার রিং রোড ধরে এগিয়ে যান। তাই তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে এবং একটি তিনজনের কমিটি তৈরি করা হয়েছে এ’বিষয়ে বিস্তারিত তথ্যানুসন্ধানের জন্য।

আরেক কৃষক নেতা জানান, “এই দুই নেতাই আউটার রিং রোড ধরে নিজেরা যান এবং তার ফলে তাদের সমর্থকরাও তাই করে। তাঁরা যুক্তি দিয়েছিলেন মানুষের আবেগের তাড়নার ফলেই তারা এই কাজ করেছেন।

এই ঘটনার পর পরই গত ২৯শে জানুয়ারি একটি পাঁচজনের অনুসন্ধান কমিটি তৈরি করা হয় ও তাদের সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। এর কিছুদিন পরে যদিও তিনজনের আরো একটি কমিটি তৈরি করা হয়েছে। এই কমিটির কাছে সাময়িক বরখাস্ত হওয়া নেতারা এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের জন্য আবেদন করতে পারেন।

যদিও তাঁরা কিষাণ প্যারেডের নির্দিষ্ট পথ থেকে বেরিয়ে আউটার রিং রোড ধরে এগিয়েছিলেন, কিন্তু তাঁরা লালকেল্লার দিকে গিয়েছিলেন কিনা তা নিশ্চিত নয়। এই নিয়মভঙ্গের কারণেই তাঁরা বাকি ইউনিয়নগুলোর সিদ্ধান্ত অনুসারে সংযুক্ত মোর্চা থেকে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন।

হরপাল সঙ্ঘকে যোগাযোগ করা গেলেও সুরজিৎ ফুলকে বহুবার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা যায়নি। হরপাল সঙ্ঘ জানান, “কৃষি আইনগুলোকে বাতিল করার লক্ষ্যে আমি কাজ করে যাব। আমি এখন পাঞ্জাবে। গত শনিবার হোশিয়ারপুরে তিন ঘন্টা চাক্কা জ্যাম কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলাম। আমাদের ইউনিয়ন আইন বাতিলের দাবিতে প্রতিবাদ জারি রাখবে।

এর আগে অক্টোবর মাস নাগাদ বাকি ৩০টি ইউনিয়ন থেকে আজমের সিং লাখোয়ালের বিকেইউ (লাখোয়াল) ইউনিয়নটিকে বরখাস্ত করা হয়। লাখোয়ালের ইউনিয়নটি অন্য ইউনিয়নগুলোর সাথে আলোচনা না করে কৃষি আইনের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছিল। পরবর্তীকালে এই মামলা তারা প্রত্যাহার করে ও বাকিদের সেই প্রমাণ দেখানোর পরে তাদের পুনরায় মোর্চাভুক্ত করা হয়।

[সংবাদটি প্রথম প্রকাশিত হয় ইণ্ডিয়ান এক্সপ্রেস পত্রিকায়]

Please follow and like us:
error16
fb-share-icon0
Tweet 20
fb-share-icon20
Tagged
No Thoughts on পাঞ্জাবের দুই ইউনিয়নকে সংযুক্ত মোর্চা থেকে সাময়িক বরখাস্ত ও মঞ্চে ওঠায় নিষেধাজ্ঞা

Leave A Comment